শিক্ষা

শিক্ষা গুরুকুলের প্রথম ও প্রধান কাজ। অভিজ্ঞতার মাধ্যমে শিক্ষাকে পূর্ণ করা ও জীবনে প্রয়োগের জন্য বাকি সব আয়োজন। গরুকুল অনলাইন লার্নিং নেটওয়ার্ক এর “সঙ্গীত গুরুকুল” এর বিভিন্ন চ্যানেলে আমরা কণ্ঠসঙ্গীত, সেতার, বাঁশি, তবলা সহ বিভিন্ন ধরণের কোর্স পরিচালনা করছি। সেগুলো আপনি ফ্রি শিখতে পারেন। পাশাপাশি গাইডেড লার্নিং এর জন্য আমাদের নিজস্ব নানা রকম কোর্স রয়েছে। সেই সাথে জাতিয় কারিকুলামের কোর্সগুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য আমরা শিক্ষা উপকরণ তৈরি করে থাকি।

আপনি যতি কারো কাছে সঙ্গীতের প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে থাকেন এবং পরবর্তী তালিম নিজ আগ্রহে গ্রহণ করে নিয়মিত রেয়াজ করতে সক্ষম হন, তবে আমাদের অনলাইন কোর্স আপনার শেখার জন্য যথেষ্ট হতে পারে। সেক্ষেত্রে আমাদের গাইডেড লার্নিং এ আসার প্রয়োজন নেই। তবে আপনি যদি সঙ্গীত ভুবনে একদম নতুন হন, তবে আমরা গাইডেড লার্নিং এ শুরু করার পরামর্শ দেই।

গুরুকুলের কোর্সসমূহ:

শ্রোতা-রসিকদের জন্য শিক্ষা [ প্রশিক্ষণ কোর্স ]:

সঙ্গীতের সাথে পরিচয় [ ৩ মাস ]:

এই কোর্সটি সাধারণ সব ধরণের সঙ্গীত রসিকদের জন্য ডিজাইন করা। যারা পরিচয় ও সঙ্গীতের গঠন সম্পর্কে জেনে সঙ্গীতের মজা নিতে চান, তাদের জন্য উপযুক্ত। এই কোর্সটির কোন পূর্বশর্ত (prerequisites) নেই। অর্থাৎ যিনি গান ভালো বাসেন এবং আরও ভালো বাসতে চান, তিনিই এই কোর্সটি শুরু করতে পারেন। এই কোর্সে – সঙ্গীত কি, সঙ্গীতের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস, বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ধরণের সঙ্গীতের পরিচয়, সঙ্গীতের বিভিন্ন অংশের নাম ও কাজ, সঙ্গীত তৈরির প্রক্রিয়া, সুর, তাল ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। এই কোর্সটি শেষ করলে একজন শ্রোতা যেকোনো গান চিনতে পারবেন, সে গানের বিভিন্ন অংশের গুনগুলো বুঝে মজা নিতে সক্ষম হবেন।

শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের প্রাথমিক অনুভব [ ৩ মাস ]:

এই কোর্সটি সঙ্গীত রসিকদের জন্য ডিজাইন করা। যারা শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শুনতে চান এবং প্রাথমিক বোঝাপড়ার মাধ্যমে সঙ্গীতের মজা নিতে চান তাদের জন্য উপযুক্ত। এই কোর্সটির কোন পূর্বশর্ত (prerequisites) নেই। অর্থাৎ যিনি গান ভালো বাসেন তিনিই এই কোর্সটি শুরু করতে পারেন। এই কোর্সে – শাস্ত্রীয় ও উপশাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ধরণ, গাইবার বা বাজাবার পদ্ধতি বা পরিবেশন পদ্ধতি, গান-বাজনার ধাপ, কয়েকটি প্রচলিত রাগের রাগের প্রাথমিক পরিচয়, রাগের সময় চক্র, সুর-সপ্তকের প্রাথমিক পরিচয়, তালের সাথে পরিচয় ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এই কোর্সটি শেষ করলে একজন শ্রোতা শাস্ত্রীয় সঙ্গীত পরিবেশনা সম্পর্কে বুঝতে পারবেন এবং মজা নিতে সক্ষম হবেন।

শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের শ্রোতা [ ৬ মাস ]:

এই কোর্সটির পূর্বশর্ত (prerequisites) আমাদের “শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের প্রাথমিক অনুভব [ ৩ মাস ]”। প্রি-রিকুজিট কোর্সটি আমাদের কাছে করতে পারেন বা একটি ছোট্ট পরীক্ষার মাধ্যমে আপনার প্রি-রিকুজিট এ অর্জিত জ্ঞান যাচাই করে নিতে পরি। প্রি রিকুজিট আপনাকে যা শেখাবে, তা যদি আপনি আগে থেকেই জানেন তবে প্রি-রিকুজিট করার কোন প্রয়োজন নেই। এই কোর্সে – শাস্ত্রীয় ও উপশাস্ত্রীয় সঙ্গীতের গাইবার বা বাজাবার পদ্ধতি বা পরিবেশন পদ্ধতির বিস্তারিত শেখানো হবে, ১৮ টি প্রচলিত রাগের সাথে বিস্তারিত পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে [ সেই জ্ঞান দিয়ে আপনি নিজে বাকি রাগগুলো চিনে নিতে পারবেন], হারমোনিয়ামে বা তানপুরা দিয়ে রেয়াজ করার পদ্ধতি বোঝানো হবে, ৬ টি তালের সব ভেরিয়েশনের সাথে পরিচয় করানো হবে, সঙ্গীতের ঘরানা সম্পর্কে ধারণা দেয়া হবে। এই কোর্সটি শেষ করলে একজন শ্রোতা শাস্ত্রীয় সঙ্গীত পরিবেশনা সম্পর্কে বিস্তারিত বুঝতে পারবেন এবং শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের সাথে অনন্ত যাত্রা শুরু করতে পারবেন।

শিল্পী বা পারফর্মারদের জন্য শিক্ষা [ প্রশিক্ষণ কোর্স ]:

সঙ্গীতের প্রাথমিক পাঠ [৩ মাস]:

৩ মাসের এই কোর্সটিতে সঙ্গীতের প্রাথমিক বিষয় [ সুর, তাল ] এর সাথে পরিচয় করানো হয়। শিক্ষার্থীকে বোঝানো হয় বিভিন্ন গায়কী এবং সেই ধরণের গায়কী অর্জনের জন্য প্রয়োজনীয় সম্পর্কে। পাশাপাশি ছোটখাটো ব্যবহারিক এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীর সম্ভাবনা যাচাই করা হয়। ১৪ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ যদি স্বেচ্ছায় সঙ্গীত শিক্ষা শুরু করতে চায় তবে তার জন্য এই কোর্সটি আবশ্যক।


নিয়মিত রেয়াজের পাঠ [ ৬ মাস ]:

৬ মাসের এই কোর্স। যেকোনো সঙ্গীতের চর্চা করার জন্য সঙ্গীতের সাধারণ তালিম প্রয়োজন যাতে সাধারণ গায়কী আসবে এবং কণ্ঠ নিজর নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিয়মিত রেয়াজ করে যেতে পারে। এই ছয় মাসে সেই রেয়াজের প্রয়োজনীয় তালিম দেয়া হয়। পাশাপাশি শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন গায়কী বা জনরার একটি করে গানের সাথে পরিচয় করানো হয়। এই কোর্সটি শেষ করলে শিক্ষার্থীর জন্য যেকোনো গায়কীতে প্রবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া এবং শুরু করা সহজ।

Link to our other important disclaimers, policy, contact, etc:

সঙ্গীত গুরুকুলের সামাজিক গণমাধ্যমের লিংক:

শিক্ষা